রঙিন টেলিভিশন আবিষ্কারের ইতিহাস

রঙিন টেলিভিশন আবিষ্কারের ইতিহাস

রঙিন টেলিভিশন আবিষ্কারের ইতিহাস, টেলিভিশন কে আবিষ্কার করেন, টেলিভিশন আবিষ্কারের ইতিহাস, রঙিন টেলিভেশন আবিষ্কার করা হয় কত সালে,


রঙিন টেলিভিশন হলো একটি টেলিভিশন  সংক্রমণ প্রযুক্তি যা ছবির রঙ সম্পর্কিত তথ্য অন্তর্ভুক্ত করে, তাই রঙিন  টেলিভিশন এর মাধ্যমে ভিডিও চিত্রটি রঙিনভাবে প্রদর্শিত হতে পারে রঙিন টেলিভিশন এর মৌলিক রং তিনটি বিশ্বের বেশিরভাগ জায়গায় রঙিন  টেলিভিশন একটি গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম কিন্তু বর্তমান আধুনিক যুগে রঙিন টেলিভিশন এর মানগুলির আবিষ্কারটি টেলিভিশন ইতিহাসে একটি গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ এবং এটি টেলিভিশন নিবন্ধের প্রযুক্তিতে বর্নিত হয়

আবিষ্কারঃ ১৯৪৬ এবং ১৯৫০ এর মাঝামাঝি সময়ে আরসিএ ল্যাবরেটরিসের গবেষনা কর্মীরা বিশ্বের প্রথম ইলেক্ট্রনিক, রঙের টেলিভিশন সিস্টেম আবিষ্কার করেছিল ১৭ ডিসেম্বর ১৯৫৩ সালে আরসিএ দ্বারা পরিকল্পিত একটি সিস্টেমের উপর ভিত্তি করে একটি সফল রঙিন টেলিভিশন সিস্টেম বানিজ্যিক সম্প্রচার শুরু হয়

রঙিন টেলিভিশন এর যুদ্ধঃ ১৯৫০ সালে,সিবিএস এবং আরসিএ নামক প্রথম দুটি কোম্পানি কোম্পানি ছিল রঙিন টেলিভিশন তৈরীর জন্য যখন  FCC অনুমুদিত হয়,তখন এর ছবি গুনমান কম হওয়ার কারনে সিস্টেমটি পাস করতে ব্যর্থ হয়

রঙিন টেলিভিশন আবিষ্কারের ইতিহাস

১৯৫০ সালে একোম্পানি ছিল রঙিন টেলিভিশন তৈরীর জন্য যখন  FCC অনুমুদিত হয়,তখন এর ছবি গুনমান কম হওয়ার কারনে সিস্টেমটি পাস করতে ব্যর্থ হয়

১৯৫০ সালে এফসিসি থেকে অনুমোদনের সাথে সিবিএস আশা করেছিল নির্মাতারা তাদের নতুন রঙের টেলিভিশন গুলো কেবলমাত্র তাদের প্রতিহিতকারী উৎপাদনগুলো খুজে বের করতে পারবে কিন্তু তিনটি কারনের জন্য সিবিএস সিস্টেম অপছন্দ করা হয়েছে প্রথমঃ এটি ব্যয়বহুল দ্বিতীয়ঃ ছবি ঝাপসা এবং তৃতীয়ঃ এটি কালো সাদা কালো সাদা ছবির জনপ্রিয়তা রঙিন টেলিভিশন এর তুলনায় অনেক কম ছিল তাই এটি আগে থেকেই অপ্রচলিত জনসাধারণের মালিকানায় আট মিলিয়ন সেট তৈরি করবে

আবার আরসিএ সাদা কালো সেটগুলির সাথে মানানসই হবে, এটি আক্রমণাত্নক পদক্ষেপে আরসিএ টি টেলিভিশন বিক্রেতাকে ২৫,০০০ চিঠি পাঠিয়েছে সেগুলোর মধ্যে অনেকেই নিন্দা জানিয়েছে এবং আরসিএ ছাড়াও বিবিএস মামলা  মামলা করেছে রঙিন টেলিভিশন বিক্রির মধ্যে সিবিএস এর অগ্রগতি করছে ১৯২৮ সালে বিজ্ঞানী জন লগি বিয়ার্ডের প্রস্তাব প্রদর্শনের মাধ্যমে নতুন হাত ধরে সাদা কালো পর্দার বদলে রঙিন পর্দায় আসতে শুরু করে

 

রঙিন টেলিভিশন আবিষ্কারের ইতিহাস

রঙিন টেলিভিশন এর জনপ্রিয়তাঃ সাদা কলো এর তুলনায় রঙিন টেলিভিশন এর জনপ্রিয়তা অনেক বেশিকরন সাদা কালো টেলিভিশনে ছবি বা ভিডিও তেমন সুন্দরভাবে উপস্থাপন করা যেত নাপরবর্তীতে ভিবিন্ন কোম্পানি তাদের দক্ষতার উপর বৃত্তি করে রঙিন টেলিভিশন তৈরী করতে নানা রকম প্রচেষ্টা চালায় এবং সফলতা অর্জন করে রঙিন টেলিভিশন ছবি বা ভিডিও খুব সুন্দর ভাবে নিজস্ব রঙের মধ্যেমে উপস্থাপন করা হয় তাই রঙিন টেলিভিশন এর জনপ্রিয়তা অনেক বেশি

 

উপসংহারঃ রঙিন টেলিভিশন আবিষ্কারের ইতিহাসে নানা রকম প্রচেষ্টা চালিয়ে অবশেষে সফল হয় রঙিন টেলিভিশন সাদা কালো টেলিভিশন এর তুলনায় অধিক জনবহুল এবং গ্রাহকদের আকৃষ্ট করতে সক্ষম হয় রঙিন টেলিভিশন নানা রকম বাধা পেরিয়ে অবশেষে রঙিন টেলিভিশন ১৯৩২ সালের ১৭ ডিসেম্বর রঙিন টেলিভিশন জিতেছিল। তথ্যসূত্র- কোরা


আরও পড়ুন- বাংলা হাইকু বিষয়ক বই

Next Post Previous Post